বাংলাদেশে প্রথম ট্যুরিজম ভিত্তিক নিউজ পোর্টাল|রবিবার, আগস্ট ৭, ২০২২
সাইটে আপনার অবস্থানঃ Home » খেলা » কাতারে বিশ্বকাপের সময় যুক্তরাষ্ট্রে ‘বিশের কাপ’ করবে ইতালি?

কাতারে বিশ্বকাপের সময় যুক্তরাষ্ট্রে ‘বিশের কাপ’ করবে ইতালি? 

Print Friendly, PDF & Email
বিজ্ঞাপন

কাতার বিশ্বকাপে ইতালি জাতীয় দলেরই সুযোগ পাওয়া এখনো সংশয়ে। ইউরোপ অঞ্চলের বাছাইপর্বে সুইজারল্যান্ড, উত্তর আয়ারল্যান্ড, বুলগেরিয়া ও লিথুয়ানিয়ার গ্রুপ থেকেই গ্রুপ সেরা হতে পারেনি গত জুলাইয়ে ইউরো জেতা ইতালি। তাদের টপকে সুইজারল্যান্ড চলে গেছে বিশ্বকাপে। ইতালিকে এখন খেলতে হবে প্লে-অফ, কিন্তু সেখানে তাদের সামনে পড়তে পারে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর পর্তুগাল।

নতুন ঢংয়ের প্লে-অফের ছকে ইতালি আর পর্তুগাল পড়েছে একই পথে। আগামী মার্চে প্লে-অফের ইতালি সেমিফাইনাল খেলবে উত্তর মেসিডোনিয়ার সঙ্গে, পর্তুগালের প্রতিপক্ষ তুরস্ক। নিজ নিজ ম্যাচ জিতলেই ইতালি-পর্তুগাল মুখোমুখি।

ফুটবলপ্রেমীদের ‘শ্যাম’ আর ‘কুল’ রাখার দ্বন্দে পড়তে হচ্ছে আরকি! একদিকে চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইতালিকে টানা দ্বিতীয় বিশ্বকাপে দেখতে না পাওয়ার শঙ্কা, অন্যদিকে শঙ্কা রোনালদোর শেষ বিশ্বকাপের বিষাদ বিশ্বকাপ শুরুর আগেই শেষ হয়ে যাওয়ার!

ইতালিয়ান লিগ আয়োজকেরা অবশ্য এত আবেগের হিসাব কষছেন না। সেখানে অর্থই মূল বিবেচ্য। তাঁদের হিসাব, ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে ইতালি সুযোগ না পেলেও বিশ্বকাপে ৩২ দলের ৭৩৬ জন খেলোয়াড়ের মধ্যে ৫৮ জন ছিলেন ইতালিয়ান লিগের খেলোয়াড়। এবার সংখ্যাটা ৮০ থেকে ৮৫ হতে পারে। ইতালি বিশ্বকাপে সুযোগ না পেলে সংখ্যাটা আরও বাড়বে। বুত্তির হিসাবে, বিশ্বকাপের সময়ে লিগের ৫৭০-৫৮০ জন খেলোয়াড় বসে থাকবেন!

রোনালদোর পর্তুগাল না  ইতালি, কোন দল যাবে বিশ্বকাপে?
রোনালদোর পর্তুগাল না ইতালি, কোন দল যাবে বিশ্বকাপে? 
ছবি: এএফপি

কিন্তু বিশ্বকাপের সময়ে মাস দেড়-দুয়েকের বিরতি, এরপর খেলা শুরু হলে খেলোয়াড়দের চোটের ঝুঁকি আরও বাড়িয়ে দেবে, সে কারণে জুন-জুলাইয়ের ‘প্রাক্‌–মৌসুমের’ মতো বিশ্বকাপের সময়েও ক্লাবগুলোকে ‘মধ্য মৌসুম’ প্রস্তুতি নিতে হবে। এই টুর্নামেন্ট এনে সেই প্রস্তুতির সুযোগও করে দিতে চায় সিরি ‘আ’।

তাতে তাদেরও লাভ হলো, খেলোয়াড়দেরও বসে থাকতে হলো না, প্রস্তুতিতে চোটের ঝুঁকিও কমল—এ-ই হচ্ছে টুর্নামেন্ট আয়োজনের পেছনে কাগজে-কলমে বর্ণিত ভাবনা।

কীভাবে হবে এই বিশের কাপ

লিগের ২০টি দলকে যুক্তরাষ্ট্রে নিয়ে যাওয়া হবে। টুর্নামেন্ট হবে দিন বিশেকের। বিশ্বকাপের ঢংয়ে এখানেও গ্রুপ পর্বের পর থাকবে নকআউট পর্ব। ২০ দলের প্রতিটি একই জায়গায় থাকবে, অনুশীলন করবে, খেলবে—করোনার সময়ে এনবিএ ২০২০ যেভাবে একটা ‘জৈব সুরক্ষাবলয়ে’ থেকে আয়োজিত হয়েছিল, অনেকটা সে ঢংয়ে।

গত জানুয়ারিতে নিউইয়র্কে সিরি ‘আ’র যে কার্যালয় খোলা হয়েছে, সেটি টুর্নামেন্টের সম্প্রচারক ও স্পনসরদের সঙ্গে কাজ করবে। খরচ সামলে নিয়ে টুর্নামেন্টটা থেকে লাভ বের করতে হবে না!

ফিফা সভাপতি ইনফান্তিনো
ফিফা সভাপতি ইনফান্তিনো
ফাইল ছবি : এএফপি

দেখবে কে টুর্নামেন্টটা

চার বছর পরপর হওয়া ফুটবল বিশ্বকাপ নিয়ে উন্মাদনাই যেখানে বিশ্ব কাঁপিয়ে রাখে, সে সময়ে ইতালিয়ান ক্লাবগুলোর ‘বিশ্বকাপে জায়গা না পাওয়া’ খেলোয়াড়দের কে দেখতে চাইবে? নিজেকেই ১০ মাস পর কল্পনা করুন। যে দিনে ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, জার্মানির মতো দলের ম্যাচ থাকবে, সেদিনে ইতালিয়ান লিগের স্পেৎসিয়া-ভেনেজিয়ার মতো দল মুখোমুখি হলে কে সেই ম্যাচ নিয়ে মাথা ঘামাবে? তা ছাড়া সে সময়ে যুক্তরাষ্ট্রে এনবিএর মৌসুম চলবে!

সিরি ‘আ’র টুর্নামেন্ট কমিটির প্রধান আন্দ্রেয়া বুত্তি অবশ্য এর ব্যাখ্যাও দিয়েছেন, ‘আমরা সূচিটা এমনভাবে সাজাব যাতে কাতারে ম্যাচগুলোর সঙ্গে সেটি সাংঘর্ষিক না হয়। ওটা (বিশ্বকাপ) একটা উৎসব, তবে এর মধ্যেও কিছু জায়গা ফাঁকা থাকবে। আমরা ওই ফাঁকা জায়গাটারই সর্বোচ্চ ব্যবহারের চেষ্টা করছি।’

ফিফা কী বলবে

নিজেরা আয়োজন করলেই তো হবে না, ফিফার অনুমোদন লাগবে না? এ ক্ষেত্রে অবশ্য আইনের একটু ফাঁক আছে। জাপান ও যুক্তরাষ্ট্রের ফুটবল লিগই যে সুবিধাটা পায়। তাদের লিগের সূচির সঙ্গে গ্রীষ্মকালে আয়োজিত বিশ্বকাপের সূচি সব সময়ই সাংঘর্ষিক ছিল, সে কারণে এত দিন বিশ্বকাপের সময়েও ‘বিশ্বকাপে জায়গা না পাওয়া’দের নিয়ে লিগ চালিয়ে গেছে জাপান-যুক্তরাষ্ট্র।

এবারের বিশ্বকাপ হচ্ছে ইউরোপের লিগগুলোর মাঝপথে। লিগের বেশির ভাগ তারকাই বিশ্বকাপে যাবেন বলে সে সময়ে ইউরোপের লিগগুলো বন্ধ থাকবে। কিন্তু এভাবে বিশ্বকাপে না যাওয়া খেলোয়াড়দের নিয়ে টুর্নামেন্ট আয়োজনে তেমন বাধা নেই।

তবু বুত্তি ঝুঁকি নিচ্ছেন না, ‘ফিফার এতে কোনো ঝামেলার মুখে পড়তে হবে না। এখন (ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি) ইনফান্তিনো এ আয়োজনে সম্মতি দেন কি না, সেটিই দেখার।’

শেয়ার করুন !!Share on FacebookTweet about this on TwitterShare on Google+Share on LinkedInShare on RedditBuffer this pageDigg thisShare on TumblrPin on PinterestShare on StumbleUponFlattr the authorEmail this to someone